Log in

I forgot my password

Who is online?
In total there are 6 users online :: 0 Registered, 0 Hidden and 6 Guests

None

[ View the whole list ]


Most users ever online was 110 on Tue Aug 01, 2017 7:51 am
RSS feeds


Yahoo! 
MSN 
AOL 
Netvibes 
Bloglines 



মণীমালার কথামালা

View previous topic View next topic Go down

20140606

Post 

মণীমালার কথামালা





রাঙ্গা কাকু/কামদেব


আজ স্কুলে যাই নি।শরীর ম্যাজ ম্যাজ করছে।খাওয়া-দাওয়া সেরে মা ঘুমোচ্ছে।চুপচাপ বসে থাকতে পারি না।ভাবছি রাঙ্গা কাকুর ঘরটা গুছিয়ে দিই।রাঙ্গা কাকু একরকম ব্যাচেলর বলা যায়। একরকম বলছি কেন না বিয়ের তিন-চার দিন পর কাকী এ বাড়ি
ছেড়ে চলে যায়।এ নিয়ে নানা জনে নানাকথা বলে।কেউ বলে শ্বাশুড়ির সঙ্গে নাকি রাঙ্গা কাকুর সম্পর্ক ছিল,মেয়ে সেটা ভাল ভাবে নিতে পারে নি তাই স্বামীকে ত্যাগ করেছে।সঠিক কারনআমি জানি না।কোন দিন জানতে পারলে আপনাদের জানাবো।
জবাফুলের মত লাল টুকটুকে রং ছিল আমার নীল কাকুর তাই ওকে ডাকতাম রাঙ্গাকাকু।অল্পবয়সেই আমার দেহের গঠন শুরু হয়।১২/১৩ বছর বয়সেই আমার স্তনদুটো ফ্রক ফেটে বেরিয়ে আসতে চাইতো দেখে মনে হত আমি যেন ১৭/১৮ বছরের যুবতী।একদিন রাঙ্গা কাকুর ঘর গুছাতে গিয়েবালিশের নীচে একটা ছবির বই।নানা রকম স্টাইলে চোদাচুদির ছবি।পাতার পর পাতা উল্টে যাচ্ছি,সারা শরীরে বিদ্যুতের শিহরন।কখন কাকাপিছানে এসে দাড়িয়েছে টেরই পাইনি। ঘাঢ়ে শ্বাস পড়তে তাকিয়ে
দেখি রাঙ্গা কাকা মিট মিট করে হাসছে।
--কাকু তুমি?
--কেমন লাগলো ছবিগুলো?কি উত্তর দেব,বুঝতে পারছি না।মাথা নীচু করে বসে আছি।
রাঙ্গা কাকু আমার মাথা তুলে ধরে আবার জিজ্ঞেস করে,কিরে মনি,বললি না তো কেমন লাগলো?
--ভাল।অস্ফুটে জবাব দিলাম।
বলার সঙ্গে সঙ্গে ছবির মত আমাকে চকাম চকাম করে কিস করল।হাতদুটো পিছনে নিয়ে গিয়ে আমার পাছা দুটো খামচে
ধরলো। আমি চোখ বন্ধকরে নিলাম,বইটা তখনও হাতে ধরা।তারপর পাছা ছেড়ে আমার স্তন টিপতে শুরু করলো। হাতের ফাকে নরম স্তন যেন ফেটে বেরিয়ে আসতে চাইছে।আমার ভীষণ ভাল লাগছে বললাম ,কাকু জামা ছিড়ে যাবে।কথাটা শুনেই কাকু চেন খুলে ফ্রক নামিয়ে দিল।আমি একেবারে ল্যাংটো কেবল প্যাণ্টি পরা।কাকু আবার সেইভাবে জড়িয়ে ধরে মাই টিপে খুব আনন্দ আর সুখ দিতে লাগল।আমার হাত দুটো তুলে বগল চাটতে শুরু করল।আমারবারো বছর বয়সেই বগল গুদ বালে ভরে গেছে।কাকু একটা হাত প্যাণ্টির মধ্যে ঢুকিয়ে গুদটা নাড়তে নাড়তে একটা আঙ্গুল গুদের মধ্যে ঠেলে দিল।
একটু ব্যাথা পেলেও বেশ আরাম লাগছিল।রাঙ্গাকাকু আমার হাতটা নিয়ে লুঙ্গির মধ্যে পুরে দিল।ভিতরে কি একটা লাঠির মত, আমি চেপে ধরলাম।বেশ গরম,কৌতূহল বশে লুঙ্গিটা টেনে খুলে দিলাম।কাকুর তল পেটের নীচ হতে মাচার শশার মত ঝুলছে কাকুর বাড়া।ইচ্ছে হচ্ছিল ছবির মত বাড়াটানিজের গুদের মধ্যে নিতে আবার ভয় হচ্ছিল যদি আমার গুদটা ফেটে যায়।
রাঙ্গা কাকু গুদে আংলি করতে করতে আমার স্তনদুটো আমের মত চুষছে।আমি একহাতে বাড়া আর একহাতে রাঙ্গাকাকুর মাথা ধরে,ফিস ফিস করে বললাম,কাকু এই বার বাটড়াটা গুদে ঢোকাও।
---পারবি তো মনি?
---তুমি ঢোকাও না,দেখি পারি কি না--।আমি প্যাণ্টিটা খুলে রাঙ্গাকাকুর বিছানায় শুয়ে দু পা ছড়িয়ে দিলাম।মনে মনে
ভগবানকে ডাকছি,আমারগুদটা যেন ফেটে না যায়।
কাকু আমার দু-পায়ের মাঝে বসে আমার গুদে আলতো করে চুমু খেল।যেভাবে একজন কুস্তিগীর কুস্তির আগে মাঠ ছুয়ে প্রনাম করে।আমি চোখ বন্ধ করলাম।কাকু বলল,মনি কোনো ভয় নেই।প্রথমে সামান্য ব্যাথা হতে পারে,পরে সব ঠিক হয়ে যাবে।একটু দাত চেপে সহ্য করিস দেখবি খুব সুখ।
আমার দেরী সইছিল না, বললাম ,ঠিক আছে তুমি ঢোকাও।
কাকু তার শশার মত বাড়াটা আমার চেরা ফাক করে তার মধ্যে মুণ্ডীটা রেখে অল্প চাপ দিল।
---উরে মারে-এ-এ! চিৎকার করে উঠলাম। আমার কান দুটো গরম হয়ে উঠলো।কাকু আমার মুখ চেপে ধরল।
---আস্তে সোনামনি।বৌদি জেগে উঠবে।আজ তা হলে থাক। ভয়ার্ত গলায় বলল কাকু।
---না,কাকু না। তুমি আস্তে আস্তে ঢোকাও,আমি নিতে পারবো।আমার গুদের মধ্যে কেমন করছে।
কাকু উঠে ড্রেসিং টেবিল থেকে ক্রীম নিয়ে এল।আঙ্গুলের ডগায় লাগিয়ে গুদের মধ্যে ঢুকিয়ে আঙ্গুলটা ঘোরাতে লাগল।আমার শরীরের সুখের বন্যা।চোখ বুজে আসছে। তারপর কাকু নিজের বাড়াটায় ক্রীম লাগাল।আঙ্গুলটা নিজের পাছায় মুছে আমার পা-দুটো কাকু নিজের থাইয়ের উপর তুলে গুদের কাছে হাটু গেড়ে বসল।দুটো হাটু দুহাতে ধরে ফাক করতেই আমি আঃ শব্দ করলাম।কাকু কোমরটা এগিয়ে এনে গুদের মুখে বাড়াটা রেখে যেইচাপ দিল,মনে হল বুঝি গুদ ফেটে গেল।কাকু বলল,মনি ঢুকে গেছে,আর ভয় নেই।
---হ্যা,আমি বুঝেছি।আমার গুদ ভরে গেছে।
---ভাল লাগছে না?
---হুম।কাকুর দিকে তাকাতে লজ্জা করছিল।কাকু নীচু হয়ে আবার আমার দুধ চুষতে লাগল।বাড়া অবশ্য গুদে ঢোকান।তারপর উঠে আস্তে আস্তেবাড়ার কিছুটা বার করে আবার ভিতরে ঢুকিয়ে দিতে লাগল।বাড়াটা যখন গুদের দেওয়াল ঘেষটাতে ঘেষটাতে
ঢুকছে বেরোচ্ছে আমার শরীরেরপ্রতিটি কোষ সুখে ফেটে পড়তে লাগল। আমি নিজেকেআর ধরে রাখতে পারছিলাম না। কাকুর উপর ভীষণ রাগ হতে লাগল।কাকুকে বললাম,একটু জোরে করনা।
বইতে পড়েছি চোদার সময় খিস্তি করলে নাকি সঙ্গি বেশি উত্তেজিত হয়।কাকুকে তাতাবার জন্য বললাম, কি হল, ক্লান্ত লাগছে?
---তোকে তিনবার চুদতে পারি।কাকু হেসে বলে।
---আগে একবার চুদে দেখাও।
---আমাকে উত্তেজিত করতে চাস,-এই নে ।কাকু জোরে ঠাপ দেয়।
---উঃ-উঃ-উঃ---।পাছাটা ভিজে ভিজে মনে হল।হাত দিতে বুঝলাম কি যেন হাতে চটচট করছে।ভয় পেয়ে গেলাম,গুদ কি ফেটে গেল?
---ও কিছুনা। সতিচ্ছদ ফেটে গেছে। সব ঠিক হযে যাবে।
কাকু ঠাপাটতে শুরু করল।পাছায় কাকুর তল পেটের ধাক্কায় দুপুস দুপুস শব্দ হচ্ছে।আমিও তৈরী একের পর এক ঠাপ সামলাচ্ছি।
কিছুক্ষন ঠাপ চলার পর কাকু গুঙ্গিয়ে উঠল,ওরে মনি রে,ধর ধর গেল গেল।কাকু আমার বুকের উপর নেতিয়ে পড়ল।উষ্ণ বীর্য গুদের নাড়িতে পড়তে আমি আর ধরে রাখতে পারলাম না।কুল কুল করে জল ছেড়ে দিলাম।কাকু নিজের লুঙ্গি দিয়ে গুদ জাং সব যত্ন করে মুছে দিয়ে আমাকে একটা বই দিল।
--মনি পড়ে দেখিস।
মলাটের উপর লেখা 'কামদেবের চটি।'


avatar
kumdev

Posts : 55
Join date : 2014-06-06
Age : 67
Location : Kolkata

View user profile

Back to top Go down

Share this post on: diggdeliciousredditstumbleuponslashdotyahoogooglelive

 
Permissions in this forum:
You cannot reply to topics in this forum